সাম্প্রদায়িকতা রুখতে এবং ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে মোদিকে হটাতে পশ্চিমবঙ্গে বাম ও তৃণমূলের জোট দরকার। এই মন্তব্য করেছেন ভারতের গুজরাটের পাতিদার আন্দোলনের নেতা হার্দিক প্যাটেল।

কলকাতার একটি সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে একান্ত সাক্ষাৎকারে ওই মন্তব্য করেন হার্দিক। গতকাল শনিবার এ সাক্ষাৎকার দিয়েছেন এই তরুণ নেতা।

হার্দিক বলেছেন, দেশকে বাঁচাতে মোদিবিরোধী সব রাজনৈতিক দলের আজ একজোট হওয়া জরুরি। প্রয়োজনে মোদিকে ঠেকাতে হাত মেলাতে হবে বাম দল ও তৃণমূলের।

গত শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গে এসে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠক করেন হার্দিক। বৈঠক শেষে তিনি মমতাকে ‘লেডি গান্ধী’ বলে অভিহিত করেন। ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনের পুরোধা মহাত্মা গান্ধীর সঙ্গে তুলনা করে ওই মন্তব্য করেন হার্দিক।

গতকাল হার্দিক বলেছেন, ‘স্বামী বিবেকানন্দ, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর আর নেতাজির ভূমিতে আসতে পেরে আমি ধন্য হয়েছি। মোদিকে হটাতে আমাদের সবাইকে নিয়ে লড়তে হবে। কোনো ব্যক্তির জন্য নয়, দেশের জন্য আমাদের লড়তে হবে।’

হার্দিক আগামী লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি হটাতে সব দলকে জোট হওয়ার কথা বলেন।

হার্দিক বলেন, ‘বিজেপির মতো সাম্প্রদায়িক শক্তিকে হটাতে এগিয়ে আসতে হবে ধর্মনিরপেক্ষ দলগুলোকে। এ নিয়ে উত্তর প্রদেশের মায়াবতী, অখিলেশ যাদবকেও ভাবতে হবে। মমতা-রাহুলকে হাত মেলাতে হবে।’

এদিন হার্দিক বলেছেন, আগামী নির্বাচনে বিজেপি আর ২৭২টি আসন পাবে না। সেই সংখ্যা নেমে দাঁড়াতে পারে ১৫০ থেকে ১৮০টিতে।

ভারতের লোকসভার ৫৪৩ আসনের মধ্যে অন্তত ২৭২টি আসন পেতে হয় সরকার গড়ার জন্য।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   আবুধাবিতে 'আটক' কাতার রাজপরিবারের সদস্য?

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

four × three =