ধাপে ধাপে আত্মহত্যায় প্ররোচিত করার অনলাইনভিত্তিক গেম ব্লু হোয়েলে আসক্ত এক শিক্ষার্থীর সন্ধান মিলেছে চট্টগ্রামে।

বুধবার ওই শিক্ষার্থীকে কাউন্সেলিংয়ের জন্য হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের এ শিক্ষার্থী গেমটির কয়েক ধাপ অতিক্রম করেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্র জানায়, গত ৫ অক্টোবর রাতে ওই শিক্ষার্থীর ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে একটি লিংক আসে। লিংকটি ক্লিক করলে গেমটি মোবাইল ফোনে ডাউনলোড হয়ে যায়। এরপর গেমটি খেলবে কি-না, অ্যাডমিন থেকে সম্মতি জানতে চাওয়া হয়। সম্মতি দিলে প্রথম ধাপে গভীর রাতে পুরো ক্যাম্পাস হাঁটার চ্যালেঞ্জ দেওয়া হয়। সেটিতে উত্তীর্ণ হলে দ্বিতীয় ধাপে হলের ছাদের রেলিংয়ে হাঁটার চ্যালেঞ্জ দেওয়া হয়। এরপর তৃতীয় ধাপে ব্লেড দিয়ে হাত কেটে তিমি আঁকা। চতুর্থ ধাপে সারাদিন চুপচাপ বসে থাকা। এসব চ্যালেঞ্জ পার করে ওই শিক্ষার্থী। এসব বুঝতে পেরে বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেক শিক্ষার্থী পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ওই শিক্ষার্থীকে হেফাজতে নিয়ে আসে।

চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের অতিরিক্ত সুপার (উত্তর) মসিউদ্দৌলা রেজা সমকালকে জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে বিষয়টি তাকে জানান। তাৎক্ষণিক তিনি ওই শিক্ষার্থীকে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে আসার নির্দেশ দেন। ওই শিক্ষার্থী জানান, কৌতূহলবশে তিনি লিংকে ক্লিক করেন। এরপর নির্দেশনা অনুসরণ করতে থাকেন।

তিনি বলেন, শিক্ষার্থীর কাছে গেমটির নির্দেশনা অনুসরণের বিভিন্ন তথ্য পাওয়া গেছে। তাকে কাউন্সেলিং করানো হচ্ছে। এখনও মানসিকভাবে পুরোপুরি স্বাভাবিক হননি। কাউন্সেলিংয়ের পর স্বাভাবিক হলে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টরের তত্ত্বাবধানে তাকে হস্তান্তর করা হবে। আগামীতে কেউ এ গেম খেললে দণ্ডবিধির ৩০৯ ধারা অনুযায়ী আত্মহত্যা চেষ্টার দায়ে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ অপরাধের শাস্তি এক বছর কারাদণ্ড বা অর্থদণ্ড অথবা উভয়দণ্ডে দণ্ডিত হবেন বলে জানান তিনি।

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

one + twenty =