মাথাব্যথা

যে ৭টি কারণে আপনি ঘুম থেকে উঠছেন মাথাব্যথা নিয়ে

বেশিক্ষণ কাজ করলে, অসুস্থ থাকলে, মাইগ্রেন বা সাইনুসাইটিসের কারণে মাথাব্যথা হতে পারে। কিন্তু অনেক সময়ে দেখা যায়, তেমন কোন কারণ ছাড়াই মাথাব্যথা করছে আর তাও সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর পরই। মাথাব্যথা নিয়ে ঘুম থেকে উঠলে সারা দিনটাই খারাপ যায়। এর পেছনে থাকতে পারে এমন কিছু কারণ যা একেবারেই চোখ এড়িয়ে যাচ্ছে আপনার। পুরনো বালিশ থেকে শুরু করে উচ্চ রক্তচাপের মত সমস্যা থাকতে পারে এর পেছনে।

১) ঘুমের সমস্যা

বিভিন্ন কারণেই ঘুম কম হতে পারে। কিন্তু কারণ যেটাই হোক না কেন, তার ফল হতে পারে মাথাব্যথা। ঠিকমত ঘুম না হওয়া বা কম ঘুম হওয়াটা মাথাব্যথার অন্যতম একটি কারণ। শুধু তাই নয়, ঘুমের সময়ের আরামদায়ক অবস্থানে না শুতে পারলে সেটাও মাথাব্যথা তৈরি করতে পারে। বিশেষ করে মাথা এবগ্ন ঘাড় সঠিক অবস্থানে না থাকাটা এক্ষেত্রে বেশি দায়ী। সঠিক বালিশ ব্যবহার এক্ষেত্রে মাথাব্যথা কমাতে সাহায্য করে।

২) বড় কোন দুশ্চিন্তা

শরীরের বিভিন্ন রকমের ব্যথার একটি কারণ হতে পারে দুশ্চিন্তা। চোয়ালের ব্যথা থেকে মাথাব্যথার পেছনে তা দায়ী হতে পারে। হ্যাঁ, দুশ্চিন্তা মানসিক হতে পারে, কিন্তু তার প্রভাবটা শারীরিক। ঘুম থেকে উঠেই যদি মাথাব্যথা লক্ষ্য করেন তাহলে ব্রিদিং এক্সারসাইজ অথবা মেডিটেশন করতে পারেন ঘুমানোর আগে বা ঘুম থেকে ওঠার পর। এই কাজগুলো স্ট্রেস কম রাখবে।

৩) রক্তচাপের দিকে লক্ষ্য করুন

উচ্চ রক্তচাপের কারণে সবসময় মাথাব্যথা হবে সেটা ধরে নেওয়া যায় না। আবার অনেকে জানেনও না যে তাদের উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা আছে।। খুব বেশি রক্তচাপ থাকলে সেটার কারণে মাথাব্যথা হতে দেখা যায়। এমনকি এর সাথে সাথে দৃষ্টিশক্তি ঝাপসা হতেও দেখা যায়। এই সমস্যাটি দেখা দিলে দ্রুত চিকিৎসা নেওয়া প্রয়োজন।

৪) বিষণ্ণতাকে অবহেলা করলে

ক্লাস্টার হেডএক (চোখের পেছনে যে মাথাব্যথা দেখা যায়), মাইগ্রেন এমনকি সাধারণ টেনশন হেডএক দেখা দিতে পারে ঘুম থেকে ওঠার পর পরই। ডিপ্রেশন থেকে এটা হতে পারে। এসব মাথাব্যথা কমাতে ডাক্তারের পরামর্শ মত বিষণ্ণতা কমানোর চিকিৎসা নেওয়া দরকার। ধূমপান ত্যাগ, স্ট্রেস কম রাখা এসব পরিবর্তন আনলেও মাথাব্যথা কমে যেতে পারে।

৫) দাঁত কিড়মিড় করা

ঘুমের মাঝে চোয়াল শক্ত করে রাখা, দাঁত কিড়মিড় করা এসব কাজ থেকে মাথাব্যথা হতে পারে। কারণ এভাবে চোয়ালের পেশীগুলোতে স্ট্রেস তৈরি হয়। দাঁতের ক্ষতি হবার পাশাপাশি এই কাজটি আপনার মাথাব্যথার পেছনেও থাকতে পারে।

৬) চা-কফি পান

সারাদিনে চা-কফি পান করে চাঙ্গা থাকেন অনেকেই। এমনকি ক্লান্তি থেকে তৈরি হওয়া মাথাব্যথা কমাতে কফি দারুণ কাজ করে বলেই আমরা জানি। কিন্তু সারাদিনে এবং সন্ধ্যের দিকে ক্যাফেইনযুক্ত পানীয় গ্রহণের ফলে সকালের দিকে মাথাব্যথা হতে পারে। 

৭) স্লিপ অ্যাপনিয়া

স্লিপ অ্যাপনিয়া হলো এমন একটি জটিলতা, যাতে রাত্রে ঘুমের মাঝে নিঃশ্বাসে বিরতি দেখা যায়। শরীরে কার্বন ডাই অক্সাইডের মাত্রা বেড়ে যায় যার ফলে সকালে দেখা যায় মাথাব্যথা। এই সমস্যাটি আপনার আছে কিনা, তা পরীক্ষা করে নেওয়া দরকার।

আপনার মাথাব্যথা যদি এতই তীব্র হয় যে মাঝরাতে ঘুম ভেঙ্গে যায়, তবে তা আরো গুরুতর কোন সমস্যার লক্ষণ হতে পারে। অসময়ে মাথাব্যথার কারণে ঘুম ভেঙ্গে গেলে ডাক্তারের সাথে এ ব্যাপারে কথা বলা খুবই জরুরী। প্রচন্ড মাথাব্যথার পাশাপাশি বিভ্রান্তি, পেশির দুর্বলতা- সেটা আরো ভয়াবহ কোন রোগের লক্ষণ হতে পারে। সুতরাং এসব সমস্যা এড়িয়ে যাওয়া যাবে না।

সুত্রReader’s Digest

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

thirteen + 12 =