ভূমধ্যসাগরে লেবাননের একটি গ্যাসক্ষেত্রের মালিকানা নিয়ে ইহুদিবাদী ইসরাইলের সঙ্গে লেবাননের টানাপড়েন তুঙ্গে উঠেছে। লেবাননের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইয়াকুব সাররাফ তেল আবিবকে সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, তার দেশের জনগণ মাতৃভূমির প্রতি ইঞ্চি জায়গা রক্ষা করতে প্রস্তুত রয়েছে।

গত বছর ভূমধ্যসাগরে লেবানন তার ১০টি গ্যাসব্লকের দু’টির উন্নয়নের জন্য আন্তর্জাতিক টেন্ডার আহ্বান করে। ডিসেম্বর মাসে প্রধানমন্ত্রী সা’দ হারিরি’র সরকার তিনটি আন্তর্জাতিক কোম্পানির সমন্বয়ে গঠিত একটি কনসোর্টিয়ামকে ব্লক-৪ ও ব্লক-৯ উন্নয়নের দায়িত্ব দেয়।

লেবাননের এ পদক্ষেপের বিরুদ্ধে গত সপ্তাহে ইহুদিবাদী ইসরাইল উসকানিমূলক বক্তব্য দিলে তেলআবিব ও বৈরুতের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়।

লেবাননের ব্লক-৯ গ্যাসক্ষেত্রের ওপর মালিকানা দাবি করে ইহুদিবাদী যুদ্ধমন্ত্রী এভিগদোর লিবারম্যান বলেন, ব্লক-৯ ইসরাইলি ভূখণ্ডের অংশ এবং সেটির ব্যাপারে লেবাননের টেন্ডার ইস্যু করা ‘উসকানিমূলক’ পদক্ষেপ।

লিবারম্যানের এ দাবির প্রতিক্রিয়ায় লেবাননের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইয়াকুব সাররাফ বলেছেন, নিজের জল, স্থল ও আকাশসীমার ওপর পূর্ণ কর্তৃত্ব রয়েছে লেবানন কর্তৃপক্ষের। তিনি রোববার লেবানন-ইসরাইল সীমান্তবর্তী এলাকা পরিদর্শনে গিয়ে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

এর আগে হিজবুল্লাহর উপ মহাসচিব শেখ নাঈম কাসেম গত শুক্রবার বলেছিলেন, লেবানন এখন আর কারো জন্য ‘সহজ গ্রাস’ নয় যে, যখন খুশি গিলে ফেলবেন।

তিনি বলেন, লিবারম্যানের বক্তব্যের জবাব শক্তির ভাষায় দেয়া হবে; কারণ, এই ভাষা উপলব্ধি করা ইসরাইলের জন্য সহজ।

এ ছাড়া, লেবাননের প্রধানমন্ত্রী হারিরি ইসরাইলি যুদ্ধমন্ত্রীর বক্তব্যকে ‘প্রত্যাখ্যাত’ এবং প্রেসিডেন্ট মিশেল আউন একে ‘হুমকিমূলক’ বলে মন্তব্য করেছেন।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   রোহিঙ্গা নিধন নিয়ে আগেই সতর্ক করেছিল গ্রাম প্রশাসকরা

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

ten − six =