মাহতাব হোসেন  : সকল ভুলের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করে বাংলা চলচ্চিত্রকে এগিয়ে নেয়ার জন্য শাকিব খানের নিকট আহবান জানিয়েছেন শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান। এসময় উপস্থিত ছিলেন ওমর সানী।

গতকাল শুক্রবার বিকেলে শিল্পী সমিতির কার্যালয়ে এই আহবান জানান তিনি।

শুক্রবার বিকেলে মান্না ডিজিটাল কালার ল্যাবের সামনে উত্তম আকাশের ‘আমি নেতা হবো’ ছবির শুটিং চলছিল। এসময় স্পটে হাজির হন জায়েদ খান। জায়েদ খান শাকিব খানকে তার প্রিয় সমিতির কক্ষে আসার জন্য আহবান জানালে শাকিব না করেন নি। হাসিমুখে ওমর সানীকে নিয়ে শিল্পী সমিতির কার্যালয়ের দিকে রাওনা হন।

শাকিব খান সমিতির কক্ষে এসে বসেন। জায়েদ খান শাকিব খানকে উপস্থিত চানাচুর ও বিস্কুট দিয়ে আপ্যায়ন করেন। এসময় জায়েদ খান বলেন, ‘আজ আমার সত্যিই অনেক আনন্দ লাগছে আমি শাকিব ভাইকে তার নিজের অফিসে নিয়ে আসতে পেরেছি। মনে হচ্ছে আমাদের এই শিল্পী সমিতির কার্যালয় পূর্ণতা পেলো।

জায়েদ খান শাকিব খানের মন্তব্য ‘ব্যাক্তিদ্বন্দ্ব’কে সমর্থন করে বলেন, আমি অবশ্যই স্বীকার করি ব্যক্তিদ্বন্দ্ব রয়েছে। কিন্তু বাংলা চলচ্চিত্রের স্বার্থে আমি ও আমার সমিতির সবার পক্ষ থেকে শাকিবের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করলাম। ‘

শাকিব খান ও ওমর সানী প্রায় ৪০ মিনিট শিল্পী সমিতির কার্যালয়ে অবস্থান করেন। এরপর জায়েদের হাত ধরেই শিল্পী সমিতির কার্যালয় থেকে ‘আমি নেতা হবো’র মেকআপ রুমে যান।

উল্লেখ্য, দুই দুইবার চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন শাকিব খান। সর্বশেষ নির্বাচনে তিনি অংশ নেননি। কিন্তু ওমর সানী প্যানেলকে সমর্থন করেন। নির্বাচনের দিন শাকিব খান মধ্যরাতে নির্বাচন কেন্দ্রে উপস্থিত হলে ‘গোলযোগ’ শুরু হয়। পরে নির্বাচিত প্যানেলের সাথে শাকিবের দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে আসে।

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

2 × 4 =