গৃহশিক্ষকের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হয়েছিল একাদশ শ্রেণির ছাত্রী। সেই ফুটেজ ভাইরাল হয়ে যাওয়ার পরে আত্মহত্যার চেষ্টা করল ছাত্রী। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের হাওড়ার শ্যামপুরে।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে এবেলা জানায়, শ্যামপুর ২ নম্বর পঞ্চায়েত সমিতির কর্মাধ্যক্ষ ছায়া মণ্ডল শিক্ষক ও ছাত্রীকে দিয়ে এই ধরনের ভিডিও করিয়ে বিক্রি করতেন। অন্য দিকে, ফুটেজ ভাইরাল হয়ে যাওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়তেই ওই ছাত্রী আত্মহত্যার চেষ্টা করে।

এর পরেই স্থানীয়রা ছায়া মণ্ডলের বাড়ি ঘেরাও করে এবং ভাঙচুর চালায়। ছায়া মণ্ডেলের বাড়ির বাইরে বিক্ষোভ দেখানোর পরে, গৃহশিক্ষক আশিস মণ্ডলের বাড়ি ঘেরাও করে ভাঙচুর চালায়। শেষ পর্যন্ত ছায়া মণ্ডল এবং আশিস মণ্ডলকে গ্রেফতার করে পুলিশ। দু’জনকেই উলুবেড়িয়া আদালতে তোলা হয়েছে।

আশিস মণ্ডলকে ৪ দিনের পুলিশ হেফাজত এবং ছায়া মণ্ডলকে ২ দিনের পুলিশ হেফাজত দেওয়া হয়েছে। ছাত্রীরও জবানবন্দি নেওয়া হয়েছে। ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়ায়।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   প্রেস কর্মচারী প্রশ্নপত্র ফাঁস করত : সিআইডি

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

2 + 3 =