আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন করেই ভোটগ্রহণ করবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। একই সঙ্গে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকবে সংস্থাটি।

আজ সোমবার বিকেলে নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার নির্বাচন ভবনে কয়েকটি গণমাধ্যমকে একথা বলেন। তবে এ ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট কিছু বলেননি তিনি।

তিনি বলেন, সেনা মোতায়েন হবে, এটা আমাদের প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ সবার অনুভূতি। তবে সেনাবাহিনীকে আমরা কীভাবে কাজে লাগাব, কী প্রক্রিয়ায় তারা যুক্ত হবে সেটা বলার সময় হয়নি। কমিশন এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত সিদ্ধান্ত নেয়নি। কমিশন সভায় এ বিষয়ে কোনো আলোচনা হয়নি। সময়ই বলে দেবে সেনা মোতায়েন কীভাবে হবে। সময়ের পরিপ্রেক্ষিতে আমরা সিদ্ধান্ত নেব। আমরা কখনোই বলব না যে, সেনা মোতায়েন হবে না।

ইভিএম না থাকার বিষয়ে এই নির্বাচন কমিশনার বলেন, পুরাতন ইভিএম অকার্যকর ঘোষণা করা হয়েছে। কিছু ভালো আছে সেগুলো দিয়ে রংপুর কিংবা অন্য জায়গায় দেখার চেষ্টা করছি ইভিএম কার্যকর করা যায় কি না। তবে এই নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার করতেই হবে এমন চিন্তা কমিশনের নেই।

তবে ভবিষ্যতে নির্বাচন প্রক্রিয়ায় ইভিএম যুক্ত করার পক্ষে তার অবস্থান ব্যক্ত করেছেন তিনি।  এ বিষয়ে তিনি বলেন, ভবিষ্যতে যারা আসবে তাদের পথটা আমরা রুদ্ধ করতে চাই না। তাদের পথ প্রশস্ত করতে চাই। আমাদের ইভিএম ব্যবহারের প্রাথমিক প্রস্তুতি নেই। এখন পর্যন্ত যে দশা দেখছি এটা ব্যবহার সম্ভব নয়। আমাদের একটা স্বচ্ছ নির্বাচন করতে হবে। সেই স্বচ্ছ নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ যন্ত্র দিয়ে হবে না।

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

8 − six =