জানিবুল হক হিরা:

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘সরকার রাষ্ট্রের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে দিয়েছে। যতগুলো প্রতিষ্ঠান ছিল, সব প্রতিষ্ঠান নিজেদের পকেটের ভেতর ঢুকিয়ে ফেলেছে।’

৪ নভেম্বর শনিবার বিকেলে রাজধানীর ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘একদলীয় সরকার ব্যবস্থা পরিচালনার জন্য গণতন্ত্রের খোলস পরে আছে। এ অবস্থা থেকে মুক্ত হতে হবে। জনগণকে সংগঠিত করে, জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করে, জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি করে সরকারকে পরাজিত করতে হবে।’

তিনি বলেন, সরকার জাতির সঙ্গে প্রতারণা করছে। সরকার অসত্যকে সত্য প্রমাণ করতে চায়। এই সরকারকে বিশ্বাস করা যায় না, আস্থা রাখা যায় না।

জনগণ থেকে সরকারের সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে জানিয়ে ফখরুল বলেন, সরকার গায়ের জোরে মিথ্যা মামলা দিয়ে, খুন করে, গুম করে ক্ষমতায় টিকে আছে।

তিনি আরও বলেন, সরকার খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলা করছে। সাধারণ মামলাগুলোর তারিখ পড়ে এক, দুই কিংবা তিন মাস পরে। খালেদা জিয়ার মামলার তারিখ পড়ে প্রতি সপ্তাহে। এসব করে সরকার খালেদা জিয়াকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখার চেষ্টা করছে।

ঐক্যবদ্ধের আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, কে কোন দল করে, সেটা বড় বিষয় না। দেশকে বাঁচানোর জন্য, গণতন্ত্রকে বাঁচানোর জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ‘আওয়ামী অপশক্তির’ বিরুদ্ধে আন্দোলনে জয়যুক্ত হতে হবে। যেদিন ঐক্যবদ্ধ হয়ে এই ‘অপশক্তিকে’ পরাজিত করার পর আফসার আহমদের প্রতি সত্যিকার অর্থে সম্মান জানানো হবে।

আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, শামসুজ্জামান দুদু, এ জেড এম জাহিদ, বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম প্রমুখ।

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

ten − one =