আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সরকার সব দলের অংশগ্রহণে অর্থবহ নির্বাচন করতে চায়। বেগম খালেদা জিয়ার দুর্নীতির মামলায় সাজা হওয়া এবং কারাগারে যাওয়ার প্রতিক্রিয়ায় লাখ লাখ লোকের ঢল নামবে এমন আশায় ছিলো বিএনপির, কিন্তু বিএনপি জনগণের সাড়া না পেয়ে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালনের কৌশল অবলম্বন করেছে। বিএনপি জনগণের সাড়া পাবেনা, তারা আগে থেকে বুঝতে পারেনি। তারা বিভিন্নভাবে প্রতিবাদ করেছে, কিন্তু সরকার তাদের বাধা দেয়নি। বিএনপি নিজেরাই যদি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ায় বা সরে দাঁড়ানোর অজুহাত দেখায় তাতে সরকারের কি করার আছে।
নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল এলাকায় শুক্রবার সকালে দ্বিতীয় কাঁচপুর সেতুর সুপার স্ট্রাকচার উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ বা সরকার নিরামিষ নির্বাচন করতে চায়না। সরকার সব দলের অংশগ্রহণে অর্থবহ নির্বাচন করতে চায়। তিনি বলেন, বিএনপি আন্দোলন করছে আদালতের বিরুদ্ধে, সরকারের বিরুদ্ধে নয়।
সাংবাদিকদের এক প্রশ্নে জবাবে তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে নেলসন ম্যান্ডেলার মতো রোবেন দ্বীপে পাঠানো হয়নি। কারাগারে খালেদা জিয়ার সেবা করার জন্য গৃহপরিচারিকা দেয়া হয়েছে। এটা নজির বিহীন ঘটনা। কারাগার চলবে জেল কোড অনুযায়ী। সেখানে জনাকীর্ণ পরিবেশ সৃষ্টির কোন সুযোগ নেই। কারাগার তো নির্জনই থাকবে।
এসময় মন্ত্রীর সাথে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার মঈনুল হক, হাইওয়ে পুলিশের এসপি শফিকুল ইসলামসহ সড়ক ও জনপথ বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকতারা।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   খালেদা জিয়ার সঙ্গে চীনা প্রতিনিধি দলের বৈঠক

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

nineteen − 9 =