সহসাই চেলসির ম্যানেজারের পদ থেকে বরখাস্ত হচ্ছেন না এন্টোনিও কন্টে। ক্লাব মালিক রোমান আব্রামোভিচের ইচ্ছায় এ যাত্রা অন্তত বেঁচে যাচ্ছেন কন্টে, এমন আভাষই দিয়েছে লন্ডনের বিভিন্ন গণমাধ্যম।
সোমবার ওয়াটফোর্ডের কাছে ৪-০ গোলে বিধ্বস্ত হবার পরে প্রিমিয়ার লীগের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন চেলসির কোচ হিসেবে কন্টের ভবিষ্যত শঙ্কার মধ্যে পড়ে। এই পরাজয়ে টেবিলের শীর্ষে থাকা ম্যানচেস্টার সিটির থেকে ১৯ পয়েন্ট পিছিয়ে চতুর্থ স্থানেই রয়েছে চেলসি। দলের ব্যর্থতার পাশাপাশি ট্রান্সফার পলিসি নিয়েও কন্টের সাথে ক্লাবের সমঝোতার বিষয়ে প্রশ্ন উঠে। ক্লাবের কোন ম্যানেজার যখন পারফরর্ম করতে ব্যর্থ হয়েছে ব্লুজ মালিক আব্রামোভিচ সাথে সাথে তাকে পদ থেকে সড়িয়ে দিতে কখনই দ্বিধা করেননি। আর সে কারনেই ওয়াটফোর্ডের মাঠে চেলসির অন্যতম বড় পরাজয়ে কন্টের বরখাস্তের বিষয়টি অনেকটা অনুমেয় ছিল। আগের ম্যাচেও বোর্নেমাউথের বিপক্ষে স্ট্যামফোর্ড ব্রীজে বড় ব্যবধানে পরাজিত হয়েছিল চেলসি। কিন্তু বেশীরভাগ বৃটিশ গণমাধ্যমের সূত্রে জানা গেছে জুভেন্টাস ও ইতালির সাবেক ম্যানেজার কন্টেকে আপাতত রেখে দেবার সিদ্ধান্ত নিয়েছে চেলসি। সোমবার ওয়েস্ট ব্রুমউইচ আলবিয়নের বিপক্ষে তার অধীনেই চেলসি মাঠে নামবে।
মঙ্গলবার চেলসি বোর্ড সদস্যের মধ্যে বেশ দীর্ঘ আলোচনা হয়েছে। যদিও জানা গেছে সেখানে ফুটবল সংশ্লিষ্ট বিষয় বাদ দিয়ে কর্পোরেট ও বানিজ্যিক বিষয়ই বেশী প্রাধান্য পেয়েছে।
চেলসির পরবর্তী কোচ হিসেবে ইতোমধ্যেই বেশ জোড়েসোড়ে নাম শোনা যাচ্ছে সাবেক বার্সা বস লুইস এনরিকের। কিন্তু কন্টে নিজে থেকে পদ ছেড়ে দেবার বিষয়টি পুরোপুরি উড়িয়ে দিয়েছেন। চেলসির সাথে তার বর্তমান চুক্তির মেয়াদ আরো দুই বছর বাকি রয়েছে। ওয়াটফোর্ডের বিপক্ষে পরাজয়ের হতাশা কাটিয়ে উঠতে কন্টে খেলোয়াড়দের তিনদিনের বিরতি দিয়েছেন।
গত সপ্তাহে নিজের ভবিষ্যত নিয়ে ক্লাবের কাছ থেকে কোন ধরনের আত্মবিশ্বাস না পাবার বিষয়ে আব্রামোভিচের উপর বেশ ক্ষিপ্ত হয়েছিলেন কন্টে। যদিও জানুয়ারি ট্রান্সফার উইন্ডোতে কন্টেকে বেশ সহযোগিতা করেছে চেলসি। রোমা থেকে ডিফেন্ডার এমারসন পালমেইরি ও আর্সেনাল থেকে ফ্রেঞ্চ ফরোয়ার্ড অলিভার জিরুদকে দলে ভিড়িয়েছে ব্লুজরা।

আরও পড়ুনঃ   প্রথম ইনিংসে শ্রীলংকাকে দ্রুত অলআউট করে দেয়ার লক্ষ্য

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

eighteen − 2 =