সিরিয়ায় সরকারের নিয়ন্ত্রণের বাইরে থাকা সর্বশেষ প্রদেশে শুক্রবার ভয়াবহ সংঘর্ষে কমপক্ষে ৬৮ জন নিহত হয়েছেন। এদিকে ত্রাণকর্মীরা বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রিত আরেকটি এলাকা থেকে বেশ কয়েকজনকে চিকিৎসার জন্য সরিয়ে নিয়েছে।

বৃহস্পতিবারের এই লড়াই বিদ্রোহীদের কাছ থেকে ইদলিব প্রদেশ পুনরুদ্ধার অভিযান শুরুর ইঙ্গিত হতে পারে। এই বিদ্রোহী দলটির নেতৃত্বে রয়েছে আল-কায়েদার সাবেক অনুগতরা।

ব্রিটেন ভিত্তিক আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস জানায়, লড়াই শুরু হওয়ার পর থেকে চলমান সংঘর্ষে কমপক্ষে ৬৮ জন নিহত হয়েছেন। আল-তামানার আশপাশে এই লড়াই চলছে।

সংস্থার প্রধান রামি আব্দেল রহমান বলেন, নিহতদের মধ্যে কমপক্ষে ২১ বেসামরিক লোক রয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, রুশ যুদ্ধবিমানের হামলায় ও সিরীয় বিমান বাহিনীর ব্যারেল বোমা বর্ষণে এরা নিহত হয়েছেন।

রামি বলেন, ২৭ সৈন্য ও আধাসামরিক ইউনিটের সদস্য এবং সাবেক আলকায়েদা অনুগত ফাতেহ আল-শামের ২০ বিদ্রোহী এই লড়াইয়ে নিহত হয়েছেন।

এই এলাকায় সোমবার থেকে শুরু হওয়া সর্বশেষ লড়াইটিতে এখন পর্যন্ত ৪২ বেসামরিক লোক নিহত হয়েছেন। সামরিক-বেসামরিক মিলে মোট নিহতদের সংখ্যা ৯০।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   আবারো প্রেসিডেন্ট পদের জন্য লড়ছেন পুতিন

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

thirteen − 9 =