মিয়ানমারে রোহিঙ্গাবিরোধী সেনা অভিযান বন্ধ করতে অং সান সু চির হাতেই ‘শেষ সুযোগ’ রয়েছে বলে মনে করেন জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস। সু চি এখনই পদক্ষেপ না নিলে রোহিঙ্গা সংকট আরও ভয়ংকর রূপ নেবে বলেও মনে করেন তিনি।

বিবিসির হার্ডটক অনুষ্ঠানে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জাতিসংঘের মহাসচিব এ কথা বলেন।

অ্যান্তোনিও গুতেরেস বলেন, আগামী মঙ্গলবার সু চি জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন। ওই ভাষণই রোহিঙ্গাবিরোধী অভিযান বন্ধের শেষ সুযোগ। তিনি যদি তাঁর অবস্থান পরিবর্তন না করেন, তাহলে এই সংকট আরও মারাত্মক আকার ধারণ করবে।

জাতিসংঘের মহাসচিব বলেন, রোহিঙ্গাদের অবশ্যই মিয়ানমারে তাদের বাড়িতে ফিরিয়ে নেওয়া উচিত। তিনি বলেন, এটা স্পষ্ট যে মিয়ানমারে এখনো ‘সেনাবাহিনীই সবার ওপরে’। কিন্তু রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে যা হয়েছে, তার জন্য তারা চাপে থাকবে।

রোহিঙ্গাবিরোধী অভিযানে সু চির সমর্থন থাকায় নোবেলজয়ী এই নেত্রীর বিরুদ্ধে বিশ্বজুড়ে সমালোচনার ঝড় বইছে। এই পরিস্থিতিতে জাতিসংঘের আসন্ন সাধারণ পরিষদের অধিবেশন যোগ না দেওয়ার সিদ্ধান্তও জানিয়েছেন সু চি।

গত ২৫ আগস্ট মিয়ানমারের রোহিঙ্গা-অধ্যুষিত রাখাইন রাজ্যে পুলিশ ও সেনাবাহিনীর তল্লাশিচৌকিতে সন্ত্রাসী হামলা হয়। এর জের ধরে সেখানে শুরু হয় সেনা অভিযান। অভিযানে রোহিঙ্গাদের বাড়িঘর পুড়িয়ে দেওয়া, হত্যা ও ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। প্রাণভয়ে বাড়িঘর ছেড়ে বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে অন্তত ৪ লাখ ৯ হাজার রোহিঙ্গা।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   সাংহাইয়ে গাড়ির ধাক্কায় ১৮ পথচারী আহত

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

3 + five =