একটি খালে স্ত্রীকে ডুবিয়ে মারতে চেয়েছিলেন স্বামী। কিন্তু বিধি বাম। খালের তীব্র স্রোতে হত্যাচেষ্টাকারী নিজেই ভেসে গেলেন। আর বিস্ময়কারভাবে বেঁচে গেছেন স্ত্রী। পুলিশ এখনও খুঁজছে স্বামীকে। ধারণা করা হচ্ছে, তার সলিল সমাধি হয়েছে। ভারতের ফিরোজপুর জেলার মালানওয়ালা গ্রামে তাদের বাস। গ্রামের কাছেই এ ঘটনা ঘটে। স্রোতে ভেসে গেলেও স্থানীয়রা বলছেন ওই নারীর স্বামী একজন অপরাধী। পুলিশ জানায়, আনওয়ার মাশিহ নামের ২৯ বছর বয়সী তরুণ তার স্ত্রী কোমালকে (২৬) নিয়ে গত বুধবার বিকালে হাঁটতে বের হন। তাদের সঙ্গে ছিলেন আনওয়ারের আরেক ভাই নাচাত্তার। স্ত্রীর অভিযোগ, এর আগে আনওয়ার আমাকে নানাভাবে অত্যাচার কতো। ওইদিন বিকালে আনওয়ার তার ভাই নাচাত্তারকে বলেন আমাকে গ্রামের বাইরে নিয়ে যেতে। এখন বুঝতেছি, তাদের পরিকল্পনা ছিল খালে ডুবিয়ে আমাকে মেরে ফেলা। থানার এএসআই লাল সিং জানান, তাদের দুজনের বিয়ে হয়ে ২০১০ সালে। তাদের দুটো বাচ্চাও রয়েছে। নারী জানান যে নাচাত্তার তাকে খালে ডোবানোর জন্যে পানিতে চেপে ধরে। কিন্তু তিনি কোনভাবে পাড়ের কিছু একটা ধরে বাঁচার চেষ্টা করেন। পরে আনওয়ার পানিতে ঝাঁপ দিয়ে স্ত্রীকে টানটানি শুরু করেন। কিন্তু তীব্র স্রোতের মুখে স্বামী নিজেও টিকতে পারেনি। ভেসে যায় সে। নাচাত্তার এ দৃশ্য দেখে পালিয়ে যায়। স্ত্রী কোনরকমে বেঁচে যান। থানায় অভিযোগ দায়ের করাতে পরে গ্রামবাসী তাকে পুলিশের কাছে নিয়ে আসেন। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   ইতিহাসের সবচেয়ে ‘অন্ধকার’ মাসটি যেমন কাটালো রাশিয়ানদের

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

4 × 4 =