সৌদি আরবের নারীরা এখন থেকে স্বামী বা পুরুষ আত্মীয়ের অনুমতি ছাড়াই নিজের ব্যবসা শুরু করতে পারবে।

সৌদি সরকার বৃহস্পতিবার এ সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে। সৌদি আরবের বাণিজ্য ও বিনিয়োগ মন্ত্রণালয় তাদের ওয়েবসাইটে জানায়, সৌদি নারীরা এখন থেকে পুরুষ অভিভাবকের অনুমতি থাকার বিষয়টি প্রমাণ করা ছাড়াই তাদের নিজস্ব ব্যবসা শুরু করতে পারবে এবং সরকারের ই-সেবা থেকে লাভবান হতে পারবে।
মন্ত্রণালয় জানায়, সৌদি নারীরা এখন থেকে স্বাধীনভাবে তাদের নিজস্ব ব্যবসা শুরু করতে পারবে।
মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের মুখপাত্র আবদুল রহমান আল-হুসাইন বৃহস্পতিবার এক টুইটে আরবি হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করে এই ঘোষণা দেন।

হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করে ‘নো নিড’ প্রচারাভিযানের উদ্যোগ নিয়ে এই শিথিলতা অর্জন করেছে বলে জানায় সৌদি আরবের সরকারি বার্তা সংস্থা।
সৌদি আরব সম্প্রতি সরকারি চাকুরিতেও নারীদের নিয়োগ দেয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।
এ ছাড়া সৌদি আরবে কয়েক দশক ধরে নারীদের গাড়ি চালানোর ওপর যে নিষেধাজ্ঞা ছিলো, তাও তুলে দেয়া হয়েছে।
বিদেশী বিনিয়োগ আকর্ষণ ও যুব সমাজের কাছে দেশের একটি আধুনিক ও ইতিবাচক ভাবমূর্তি গড়ার লক্ষ্যে সৌদি আরবে ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের নেতৃত্বে গত অক্টোবরে ‘মধ্যমপন্থী ও মুক্ত’ সৌদি আরব গড়ার প্রত্যয়ে শুরু হওয়া ‘ভিশন-২০৩০’ সংস্কার কর্মসূচির অংশ হিসেবে দেশটি নারীর হার মোট কর্মজীবীর ২২ শতাংশ থেকে প্রায় এক তৃতীয়াংশে উন্নীত করতে চায়।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   মেয়ের গর্ভপাত করাতে আদালতে দ্বারস্থ বাবা-মা

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

13 − eight =