বলিউড সুপারস্টার শ্রীদেবী কাপুর মারা গেছেন। হিন্দী সিনেমার অন্যতম সেরা অভিনেত্রী হিসেবে তিনি পরিচিত।
রোববার বার্তা সংস্থা পিটিআই একথা জানায়।
দুবাইয়ে শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি মারা যান।
৫৪ বছর বয়সী এই তারকার শনিবার রাতে আমিরাতে তার ভাতিজার বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দেন। এ সময় হঠাৎ অসুস্থ্য হয়ে পড়েন তিনি।
খবর বার্তা সংস্থা এএফপি’র।
তার এই মৃত্যুর সংবাদে বলিউড পাড়ায় শোকের ছায়া নেমে আসে।
অভিনেত্রী প্রিয়াংকা চোপড়া টুইট বার্তায় লিখেছেন, ‘আমি শোক প্রকাশের ভাষা হারিয়ে ফেলেছি। শ্রীদেবীর সকল ভক্ত ও শুভাকাক্সক্ষীদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।’
মৃত্যুর সময় তার স্বামী বনি কাপুর আর ছোট মেয়ে খুশী তার সঙ্গে ছিলেন বলে জানা যাচ্ছে।
বলিউডের হাতেগোনা যে কয়েকজন অভিনেত্রী নায়ক সহকর্মীর সহায়তা ছাড়াই ব্যবসা সফল চলচ্চিত্র উপহার দিতে পারতেন, শ্রীদেবী ছিলেন তাদের একজন। চাঁদনী, মিস্টার ইন্ডিয়া, মাওয়ালী ও তোফাসহ তিনি বেশ কয়েকটি সুপার হিট সিনেমা উপহার দিয়েছেন।
চার বছর বয়স থেকে অভিনয় শুরু করেন শ্রীদেবী। তামিল, তেলেগু, মালায়াম, কান্নাডা আর হিন্দি ভাষার চলচ্চিত্রে তিনি অভিনয় করেছেন।
শিশুশিল্পী হিসেবে বলিউডে অভিষেক হয় শ্রীদেবীর। চিত্তাকর্ষক চোখ, রুপালি পর্দায় উপস্থিতি আর অভিনয় দক্ষতা তাকে তুমুল জনপ্রিয়তা এনে দেয়। ২০১৩ সালে তাকে পদ্মশ্রী সম্মাননা প্রদান করে ভারতের সরকার।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   ‘সারা রাস্তা আঙ্কেলের হাত আমার স্কার্টের ভিতরে ছিল’

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

one × 2 =