জিম্বাবুয়ের নতুন রাষ্ট্রপতি হিসেবে দেশটির সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট এমারসন এমাঙ্গাগুয়া শপথ গ্রহণ করেছেন। এর মাধমে জিম্বাবুয়ের স্বাধীনতা আন্দোলনের অন্যতম নেতা ও সাবেক প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবের ৩৭ বছরের শাসনের অবসান ঘটল। দেশটির জনগণ নতুন একজন প্রেসিডেন্ট পেল।

২৪ নভেম্বর শুক্রবার রাজধানী হারারেতে অবস্থিত জাতীয় ক্রীড়া স্টেডিয়ামে নতুন প্রেসিডেন্টের শপথগ্রহণকালে হাজার হাজার মানুষ উপস্থিত হয়ে উল্লাস প্রকাশ করে। দেশটির প্রধান বিচারপতি লুক মালাবা শপথ বাক্য পাঠ করান। এসময় এমারসন এমাঙ্গাগুয়ার স্ত্রী অক্সিলিয়া এবং আফ্রিকার বিভিন্ন দেশের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

শপথগ্রহণ শেষে সমর্থকদের উদ্দেশে এক সংক্ষিপ্ত ভাষণে জিম্বাবুয়ের অর্থনীতি পুরুদ্ধার করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করে এমারসন এমাঙ্গাগুয়া বলেন, ‘আমি আপনাদের সেবক হবার অঙ্গীকার করছি। আজ থেকে আমরা সবাই একসঙ্গে কাজ করব। এখানে কেউ কারও চেয়ে কম গুরুত্বপূর্ণ নন। আমাদের পরিচয় আমরা প্রত্যেকে জিম্বাবুয়ের নাগরিক। আমি চাই কাজ, কাজ ও কাজ।’

এর আগে চলতি মাসের প্রথম দিকে জিম্বাবুয়ের ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্বরত এমাঙ্গাগুয়াকে জোরপূর্বক পদত্যাগে বাধ্য করেন প্রেসিডেন্ট মুগাবে। পরে নিরাপত্তা শঙ্কায় তিনি পার্শ্ববর্তী দক্ষিণ আফ্রিকায় আশ্রয় নেন। মুগাবের পতনের পর গত বুধবার দেশে ফিরে আসেন এমাঙ্গাগুয়া।

শপথ অনুষ্ঠানে আগত তিনাশে সিহালুগু নামে ২৩ বছর বয়সী এক জিম্বাবুয়ের নাগরিক বলেন, ‘আমি তার ওপর আস্থা রাখি। ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে আমরা ইতোমধ্যে তার কাজ দেখেছি। তিনি প্রকৃতপক্ষেই একজন কর্মী যিনি তার নেতৃত্বের মাধ্যমে জাতিকে সমৃদ্ধির পথ দেখাবেন এবং আমাদের অর্থনৈতিক পরিস্থিতির উন্নতি করবেন।’

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

2 × three =