প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে সেরা বোলিং সানজামুল ইসলামের। গত ফেব্রুয়ারিতে চট্টগ্রামে মধ্যাঞ্চলের হয়ে ৮০ রানে ৯ উইকেট নিয়ে এই রেকর্ড করেছিলেন বাঁহাতি স্পিনার। জাতীয় লিগে ৯ উইকেট আছে আরও তিনজনের। রেকর্ড থেকে মনির হোসেন তাই বেশ দূরে। তবে জাতীয় লিগের দ্বিতীয় পর্বে খুলনার বিপক্ষে আজ ৮৫ রানে ৭ উইকেট নিয়ে বরিশালের বাঁহাতি স্পিনার করেছেন ক্যারিয়ার-সেরা বোলিং।

আগের দিনের ৩ উইকেটে ৩৪৮ নিয়ে খেলতে নামা খুলনা আজ মনিরের স্পিন-জাদুতে অলআউট ৪৪৪ রানে। মোহাম্মদ মিঠুনকে দিয়ে শুরু করেছিলেন, থেমেছেন আল আমিনকে এলবিডব্লু করে। আজ ৯৬ রানে খুলনার শেষ ৭ উইকেট পড়েছে। প্রতিটিই পেয়েছেন মনির। জিয়াউর রহমান ও মাশরাফি বিন মুর্তজাকে পর পর দুই বলে আউট করে হ্যাটট্রিকের সামনে ছিলেন। সেটি না হলেও ক্যারিয়ার-সেরা বোলিংয়ের তৃপ্তি নিয়ে মাঠ ছাড়ার সুযোগ হয়েছে ৩১ বছর বয়সী স্পিনারের।
তবে অতৃপ্তি থেকে গেছে মেহেদী হাসানের। খুলনার এই তরুণ টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান হাতছাড়া করেছেন ডাবল সেঞ্চুরির সুযোগ। মনিরের বলে এলবিডব্লু হওয়ার আগে করেছেন ১৭৭ রান।
প্রথম ইনিংসে ব্যাটিং করতে নেমে বরিশাল অবশ্য খুব একটা ভালো অবস্থানে নেই। দিন শেষে তাদের স্কোর ৬ উইকেটে ১৭১ রান। এখনো পিছিয়ে ২৭৩ রানে। আল আমিন ও আবদুর রাজ্জাক পেয়েছেন ২টি করে উইকেট। মাশরাফি বিন মুর্তজা ও মেহেদী হাসানের পাশে ১টি উইকেট।
রাজশাহীতে জাতীয় লিগের আরেক ম্যাচে রাজশাহীর আরেক ম্যাচে প্রথম ইনিংসে ৮ উইকেটে ৪১৯ করেছে চট্টগ্রাম। ইয়াসির আলী আউট হয়েছেন ৯৪ রানে। ফিফটি করেছেন ইরফান শুক্কুর ও সাজ্জাদুল হক।

 প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে বাংলাদেশি বোলারদের সেরা বোলিং

বোলার ম্যাচ ভেন্যু মৌসুম
৯/৮০ সানজামুল ইসলাম উত্তরাঞ্চল-মধ্যাঞ্চল চট্টগ্রাম ২০১৬-১৭
৯/৮২ সাকলাইন সজীব বাংলাদেশ এ-জিম্বাবুয়ে এ কক্সবাজার ২০১৪-১৫
৯/৮৪ আবদুর রাজ্জাক খুলনা-চট্টগ্রাম বগুড়া ২০১২-১৩
৯/৯১ আবদুর রাজ্জাক খুলনা-ঢাকা মহানগর কক্সবাজার ২০১৩-১৪
৯/১০৫ মোশাররফ হোসেন বরিশাল-চট্টগ্রাম বরিশাল

২০০৪-০৫

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

two × five =